খালেদার সাজা ঘোষণার ৪৫মিনিট আগেই দিল্লিতে রায়ের কপি ফাঁস?

0

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রায় আদালত কর্তৃক ঘোষণা দেয়ার ৪৫ মিনিট আগে দিল্লি থেকে হুবহু রায়ের কপি প্রকাশ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে গাংনী উপজেলা ছাত্রদল এর ফেসবুক পেজ থেকে। সেখানে তথ্যসূত্র হিসেবে একটি স্ক্রীণশটও দেয়া হয়েছে। যে ছবিটিতে লাল রঙের বৃত্তে রায় প্রকাশের ভারতীয় আদর্শ সময় দেখা যাচ্ছে।

গাংনী উপজেলা ছাত্রদল এর ফেসবুক পেজ থেকে প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে-

বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রাজনৈতিক রায় ঘোষণার আদালত কর্তৃক ঘোষণার অন্তত ৪৫ মিনিট আগে দিল্লি থেকে হুবহু রায়টি প্রকাশ করা হয়।

টাইমস অব ইন্ডিয়া তাদের স্থানীয় সময় ২:২৫ মিনিটে পিটিআই পরিবেশিত খবর প্রকাশ করে- “Bangladesh‘s former Prime Minister and opposition BNP chief Khaleda Zia was on Thursday sentenced to five years in jail in a corruption case. Zia, 72, was sentenced by the Special Court-5 in the capital, Dhaka, in connection with embezzlement of 21 million takas ($252,000) in foreign donations meant for the Zia Orphanage Trust.

তখন বাংলাদেশে সময় দুপুর ১:৫৫, তখনও বেগম জিয়া কোর্টে পৌছতে পারেননি। ঢাকার বকশিবাজার বিশেষ জজ আখতারুজ্জামান রায় পড়া শুরু করেননি। দুপুর আড়াইটার পরে রায় পড়া শুরু করেন। প্রায় আধা ঘন্টায় রায়ের মুল অংশ যখন পড়েন জজ, তখন ঢাকায় প্রায় বিকেল ৩টা।

অর্থাৎ রায় ঢাকায় ঘোষণার আগেই দিল্লিতে প্রকাশিত। এসব দেখে অনেকেই বলছেন- এ রায় দিল্লির, এ রায় প্রণবের।

গাংনী উপজেলা ছাত্রদল এর ফেসবুক পেজে প্রকাশিত পোষ্টে কিছুদিন আগে ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির ৫ দিনের সফরে বাংলাদেশে আসার বিষয়টি নিয়ে ইঙ্গিত করা হয়েছে। বাংলাদেশ সফরে তিনি একটি সাহিত্য সম্মেলনে যোগদান করতে এসেছিলেন। সেই সাথে রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎও করেন। বিশেষ সমাবর্তন অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাঁকে সম্মানসূচক ডি.লিট ডিগ্রি প্রদান করেন। তাঁর এই সফর নিয়ে বিএনপি উক্ত সময়ে কটাক্ষ করেছিলো অনেক। যদিও প্রণব মুখার্জির সাথে সাক্ষাৎপ্রার্থীদের দলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুলও উপস্থিত ছিলেন বলে ছবিতে দেখা গেছে।

এ বিষয়ে তথ্য প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ শিবরাম চক্রবর্তী ইবিজ সিটিজি ডটকমকে জানান, এসব ইডিট করা যায়। ফলে বিষয়টি সত্য নয় বলেই প্রতীয়মান হয়। হাসি চেপে তিনি প্রতিবেদককে বলেন, বাংলাদেশ এবং ভারতের মধ্যকার ৩০ মিনিট সময়ের ব্যবধানটা বিএনপি বোধহয় ভুলে গেছে।


এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। ebizctg.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে ebizctg.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।