লাদেনের পরামর্শ মোতাবেক নিয়মিত হস্তমৈথুন করত জঙ্গিরা!

0

ওসামা বিন লাদেন- এই নামের মধ্যেই আজও যেন অনেক রহস্য লুকিয়ে৷ সন্ত্রাসের প্রসঙ্গ এলে আজও এই নামটাই শীর্ষে চলে আসে৷ যত দিন যাচ্ছে লাদেন সম্পর্কে অনেক আজানা তথ্য সামনে উঠে আসছে৷ যেমন সম্প্রতি জানা গেল, তালেবান জঙ্গিরা কখন কখন হস্তমৈথুন করতে পারবে তারও পরামর্শ দিয়েছিল আল কায়েদা প্রধানই৷

হস্তমৈথুন একটি নিরাপদ যৌন অভ্যাস। এটি চিকিৎসা বিজ্ঞান কর্তৃক স্বীকৃত। পরিমিত হস্তমৈথুন মানসিক চাপ বা হাইপারটেনশন, অস্থিরতা, হৃদরোগ, বিষণ্নতা, অনিদ্রাসহ অনেক সমস্যা দূর করতে সক্ষম। যদিও ইসলামে হস্তমৈথুন নিষিদ্ধ। একে কঠোরভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে বিধানে। মুসলমানদের জন্য হস্তমৈথুন একটি শাস্তিযোগ্য অপরাধ এবং কবিরা গুণাহ (ক্ষমার অযোগ্য পাপ) হিসেবে বিবেচিত।

২০১১ সালে লাদেনকে খতম করার পর বেশ কিছু নথি বাজেয়াপ্ত করেছিল আমেরিকা৷ সম্প্রতি ডিরেক্টর অফ ন্যাশনাল ইন্টেলিজেন্সির তরফে সেরকমই এক রিপোর্ট প্রকাশ্যে আনা হয়েছে৷ আসলে তা ঘনিষ্ঠ অনুচরকে লেখা লাদেনের একটি চিঠি৷ যার উপরে লেখা ছিল ‘টপ সিক্রেট’৷ সন্ত্রাস ছড়ানোর প্রসঙ্গে আমেরিকা ও ফ্রান্সকে কব্জা করার জন্য প্রয়োজনীয় পরামর্শ চিঠি লিখে অনুগামীকে জানিয়েছিল লাদেন৷ পাশাপাশি জঙ্গিদের যৌনজীবন কেমন হবে, তারও একটা নির্দেশণা দেওয়া আছে৷ লাদেনের জিহাদি আদর্শেই বহু তরুণ হাতে অস্ত্র তুলে নিয়েছিল৷ পরিবার পরিজন ত্যাগ করে সন্ত্রাসের মাধ্যমে ইসলাম কায়েম করার লক্ষ্যে দিনের পর দিন ঘরছাড়া থাকাই তাদের জীবন যাপন৷ দ্বীনের পথে একাগ্রচিত্তে অবিচল থাকতে পরিবার ও স্ত্রীদের সংস্পর্শ থেকে দূরে থাকতে হত তাদের৷ এই পরিস্থিতিতে যৌনতার ক্ষেত্রে বেশ উদার মনোভাবই ছিল আল কায়েদা প্রধানের৷ স্ত্রী সংসর্গ থেকে দূরে থাকার সময় জিহাদিদের হস্তমৈথুন করার পরামর্শও দিয়েছিল লাদেন৷

কঠোর শাসকের মনোভাবেই সন্ত্রাসের বিরাট সংগঠন তৈরি হয়েছিল তার হাত ধরে৷ অনুগামীদের উপর তার প্রভাব যে কতটা তা এই ‘টপ সিক্রেট’ চিঠি থেকেই বোঝা যায়৷ সম্ভবত যৌনতার ক্ষেত্রে জিহাদিদের নানা বিধিনিষেধ মানতে হত৷ তবে চূড়ান্ত অবস্থায় পড়লে সে নিয়মের রাশ যে আলগা হতে পারে, এমনটাই পরামর্শ ছিল লাদেনের৷


এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। ebizctg.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে ebizctg.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply