পুরুষদের হঠাবে স্পর্শকাতর পুরুষাঙ্গ ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন সেক্স রোবট!

0

নারীদের মধ্যে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে সেক্স রোবটের চাহিদা। এমন তথ্য উঠে এসেছে এক গবেষণায়। হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির গণিত বিশেষজ্ঞ ড. ক্যাথি ও’নিল জানিয়েছেন, অদূর ভবিষ্যতে ‘ম্যান রোবটস’-এ মজবেন নারীরা, এসব পুরুষ রোবট রান্নাও করতে পারে।

গবেষকের মতে, নারীরা শুধু ভালোবাসা ও যৌনতার বাইরে চান যেন তাদের ঘরের কাজকর্মও কেউ শেয়ার করে। স্বাভাবিকভাবেই বাড়ির সব কাজ মানুষের থেকে বেশিই ভালোভাবে করবে রোবট। তাই আগামী দিনে নারীদের ম্যান রোবটের আকৃষ্ট হওয়া অস্বাভাবিক কিছু নয়।

বিশ্বের স্বনামধন্য পাঁচটি সেক্স রোবট নির্মাণ প্রতিষ্ঠান রয়েছে। যাদের ম্যান রোবটসের দাম ৫,৪০০ ডলার থেকে ১৫,৭০০ ডলার পর্যন্ত। ডিলাক্স মডেলের সবচেয়ে বেশি দাম। যদিও বর্তমানে অনেক পুরুষই সেক্স রোবট ব্যবহার করে থাকে, তবে খুব শিগগিরই ছবিটা পাল্টে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

হার্ভার্ডের ওই গবেষকের মতে, এতে পুরুষদেরই বিপদ বাড়বে। কারণ রোবটেরা তাদের ছাপিয়ে যাবে।

এ বছরই বাজারে আসছে সত্যিকারের অনুভূতিসম্পন্ন স্পর্শকাতর পুরুষাঙ্গ বিশিষ্ট পুরুষ সেক্স রোবট। রিয়েলবোটিক্স এর প্রতিষ্ঠাতা এবং নির্মাতা ম্যাট ম্যাককুলেন ‘হারমনি’ নামের একটি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাযুক্ত অ্যাপ তৈরী করেছেন, যা তিনি বসিয়ে দেবেন ওই পুরুষ সেক্স রোবটগুলোর মস্তিষ্কে। পুরুষাঙ্গের আকার এবং গড়ন হবে ক্রেতার চাহিদা অনুসারে। ক্রেতা নিজের পছন্দের পুরুষাঙ্গ বেছে নিতে পারবেন।

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বিষয়ক গবেষক ড. ডেভিড লেভি এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, এই পুরুষ সেক্স রোবটগুলো অচিরেই সেক্স টয় এর স্থান দখল করে নিবে। বাজারে থাকা বিভিন্ন প্রকার সেক্স টয় যেমন ভাইব্রেটর ও ডিল্ডো হারিয়ে যাবে এদের কারনে। নারীদের কাছে এই রোবটগুলো পুরুষদের চাইতেও বেশি আকর্ষণীয় মনে হবে। লেভি বলেন, সেক্স টয়ে যে সুবিধাটুকু নেই, যেমন যৌনতার সময় সঙ্গিনীকে জড়িয়ে ধরা, এই রোবটগুলো জড়িয়ে ধরবে- এই অনুভূতি যে কোন নারী ক্রেতাকে আকৃষ্ট করতে যথেষ্ট।

এই অ্যাপের মাধ্যমে সঙ্গিনীর (পড়ুন নারী ক্রেতা) পছন্দ, যৌন অভ্যাস, যৌনতা বিষয়ক বিভিন্ন খুঁটিনাটি শিখে যাবে দ্রুততর সময়ের মধ্যেই। ফলে এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন রোবটগুলো যৌনতার প্রকৃত স্বাদ দিতে সক্ষম হবে। আর এই গুণগুলো একে পুুরুষ সঙ্গীর বিকল্প হিসেবে নারীদের কাছে আদরণীয় হয়ে উঠবে বলে ম্যাট দাবি করেছেন।

হারমনির মাধ্যমে এই রোবটগুলো সঙ্গিনীর সাথে কথা বলবে, শিখবে আর অনুভূতিপ্রবণ হয়ে উঠবে দ্রুত। হারমনি অ্যাপযুক্ত নারী রোবট ইতিমধ্যেই বাজারে আছে। যেগুলোর মূল্য ১১,০০০ পাউন্ডের মতো। পুরুষ সংস্করণটি এখনও বাজারজাত করা হয়নি। এ বছরের শেষের দিকে বাজারে আসবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।


এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। ebizctg.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে ebizctg.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply